শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:৩১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
চাঞ্চল্যকর গলাকাটা হত্যা মামলার ৬ আসামি দিরাই থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৯

চাঞ্চল্যকর গলাকাটা হত্যা মামলার ৬ আসামি দিরাই থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৯

নিউজ ডেস্ক :: র‌্যাব-৯ এর অভিযানে সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই থানা এলাকা থেকে চাঞ্চল্যকর গলাকাটা হত্যা মামলার ০৬ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ০১ মে সুনামগঞ্জের দিরাই থানাধীন মঙ্গলপুর হাওড় হইতে দুদু মিয়া (৪৫) নামে মস্তকবিহীন লাশ উদ্ধার করেছিল পুলিশ। উক্ত ক্লুলেস হত্যাকান্ডের মূল রহস্য উৎঘাটনের জন্য র‌্যাব ছায়া তদন্ত শুরু করে।

পরবর্তীতে ০৪ মে ০৭.৪০ ঘটিকার সময় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-০৯, এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল আবু মুসা মোঃ শরীফুল ইসলাম, পিএসসি এর নেতৃত্বে লেঃ কমান্ডার সিঞ্চন আহমেদ ও এএসপি মোঃ আব্দুল্লাহ সহ সিপিসি-৩ (সুনামগঞ্জ ক্যাম্প) এর একটি আভিযানিক দল সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই থানাধীন মঙ্গলপুর এলাকা থেকে দুদু মিয়ার হত্যার সাথে জড়িত ১। আলবাহার (৩৫), স্বামী- মৃত আঃ কাইয়ুম, সাং- ইসলামপুর, ২। সত্যরঞ্জন দাস (৫৫), পিতা- মৃত জলধর দাস, সাং- ভাঙ্গাডহর, ৩। নাসির উদ্দিন (৩৫), পিতা- ফজলুল হক, সাং- নরুত্তমপুর, ৪। নাজমুল হুসাইন (৪৯) , পিতা- মৃত তোয়াহিত, সাং- দাউদপুর, ৫। লুৎফর রহমান (৩৫), পিতা-মুসলিম উল্লাহ, সাং- নরুত্তমপুর, ৬। আঃ মালেক (৩০), পিতা- মকবুল আলী, সাং-ভাঙ্গাডহর, সর্ব থানা- দিরাই, জেলা- সুনামগঞ্জ’ এই ৬ জনকে আটক করে।

আটককৃত ব্যক্তিদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা হত্যাকান্ডের পরিকল্পনা, কার্যক্রম এবং মোটিভ স্বীকার করে। প্রাথমিক তদন্তে জানা যায় যে, ভিকটিম দুদু মিয়া উক্ত হত্যাকান্ডের প্রধান আসামী কবিরের খামারে কাজ করত। বছর খানেক আগে দুদু মিয়া কবিরের কাছ থেকে ৬ হাজার টাকা ধার নিয়ে কাজ ছেড়ে চলে যায়।এছাড়া দুদু মিয়া সাথে ব্যক্তিগত পূর্ব শত্র“তার জের থাকায় তার সহযোগীদের সহায়তায় উক্ত ঘটনা ঘটায়।

আটককৃত আসামীদেরকে সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই থানায় হস্তান্তর করেছে  র‍্যাব-৯।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।