শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৬:০৬ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
সিলেটে বিদ্যুৎস্পষ্ট হয়ে দুই স্থানে দুই জনের মৃত্যু জকিগঞ্জে বন্যার পানিতে ডুবে এক ব্যক্তির মৃত্যু চিনি ছিনতাই কান্ডে তাহমিদ নামে আরো একজন গ্রেফতার চিনি কান্ডে বিয়ানীবাজার উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত; রাজপথে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল বিয়ানীবাজারে বহুল আলোচিত চিনি কান্ড:এ পর্যন্ত গ্রেফতার ০২ সিলেটের মেজরটিলায় টিলা ধসে ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু বিয়ানীবাজারে একই রাতে ১৫ আসামী গ্রেফতার জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন:লোকমান,সবুর ও সুলতানার বিজয় বিয়ানীবাজার উপজেলা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ রায়হান সভাপতি,আকরাম সেক্রেটারি আমেরিকায় পুলিশের গুলিতে বিয়ানীবাজারের যুবক নিহত
মৌলভীবাজারে দুই মেয়েকে নিয়ে গৃহবধূ নিখোঁজ

মৌলভীবাজারে দুই মেয়েকে নিয়ে গৃহবধূ নিখোঁজ

দর্পণ ডেস্ক : মৌলভীবাজারে কুলাউড়ায় আবারও দুই মেয়েকে নিয়ে নিখোঁজ হয়েছেন শাহিনা আক্তার (৩৪) নামে এক গৃহবধূ। ইতিপূর্বেও একবার একইভাবে নিরুদ্দেশ হয়েছিলেন গৃহবধূ। তার স্বামী কুলাউড়া থানায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে ৩টি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

পুলিশ জানায়, উপজেলার ভুকশিমইল ইউনিয়নের ইসমাইল হোসেন সবুজের স্ত্রী শাহিনা আক্তার গত মঙ্গলবার সকালে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে কুলাউড়া শহরে আসেন। পরে আর বাড়িতে ফিরে যাননি। তার ব্যবহৃত মোবাইল সিমটিও বন্ধ রয়েছে। সঙ্গে দুই মেয়ে জাহানারা আক্তার মীম (১২) ও ফাতেমা আক্তার মৌ (৯) ছিল। শাহিনা আক্তারের স্বামী ইসমাইল হোসেন সবুজ এ ঘটনায় কুলাউড়া থানায় জিডি করেন।

এ ব্যাপারে কুলাউড়া থানার ওসি বিনয় ভূষণ রায় জানান, প্রায় সময় এভাবে ওই গৃহবধূ চলে যান। তারপরও বিষয়টা নিয়ে তদন্ত চলছে।

সাধারণ ডায়েরিতে স্বামী ইসমাইল হোসেন সবুজ আরও অভিযোগ করেন, গত বছরের ২ মার্চ একইভাবে এক মেয়েকে নিয়ে লাপাত্তা হয়েছিলেন। ৩ মাস পর নিজে নিজে বাড়িতে ফিরে আসেন। লাপাত্তা হওয়ার ৩ মাস পর ফিরে এসে আমার স্ত্রী পুনরায় ঝগড়া বিবাদ ও পারিবারিক অশান্তির সৃষ্টি করে।

এছাড়া গত ১০ জানুয়ারি শাহিনা আক্তার ৯৯৯ এ কল করে থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। পুলিশ সঙ্গে সঙ্গে বাড়িতে গিয়ে অভিযোগের কোনো সত্যতা পায়নি। ফলে বাধ্য হয়ে স্বামী সবুজ এই ঘটনায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে আরেকটি জিডি দায়ের করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।