শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০:৫৮ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
বাবার বিরুদ্ধে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ,বাধা দেয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত

বাবার বিরুদ্ধে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ,বাধা দেয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জে বাবার বিরুদ্ধে কিশোরী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এতে বাধা দেয়ায় নিজের স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করেছে অভিযুক্ত পিতা সালাম মিয়া। জানা যায়- নবীগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকার জিয়াপুর গ্রামে স্ত্রী ও নিজের ১৩ বছর বয়সি মেয়েকে নিয়ে বসবাস করতেন সালাম মিয়া। পেশায় তিনি সিএনজি (অটোরিক্সা) চালক। প্রায় বছর খানেক ধরেই নিজের ঔরষজান ১৩ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করে আসছেন তিনি। বিষয়টি যেন কাউকে না জানানো হয় সেজন্য তাকে ভয়-ভীতি দেখানো হয়।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্ত্রীকে বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে মেয়েকে ধর্ষণ করে। পরে বিষয়টি তার মা জেনে ফেললে তিনি প্রতিবাদ করেন। এ সময় সালাম মিয়া দুজনকে পিটিয়ে আহত করে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় মা-মেয়েকে উদ্ধার করে রাত ১২টার দিকে হবিগঞ্জ জেলা আধুনিক সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করা হয়। এসময় ধর্ষিতার আহত মা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে মেয়েকে ভর্তি করা হয়।

ধর্ষণের শিকার ওই মেয়ে সিলেটের ওসমানী নগর এলাকার সেফারজুতল নেছা হাফিজিয়া মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। ছুটিতে বাড়ি আসলেই তার বাবা তাকে ধর্ষণ করত।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. অপুর্ব দাশ জানান, ধর্ষণের ঘটনায় মেয়েটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা ভালো আছে। পরিক্ষা-নিরিক্ষা শেষে ঘটনার বিস্তারিত জানা যাবে।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমান বলেন, এমন একটি ঘটনা শুনেছি। এছাড়া সকালে থানার ওসি (তদন্ত) উত্তম কুমারকে ভিকটিমের বাড়িতে পাঠিয়ে বিষয়টির খোঁজ খবর নেয়া হয়। প্রাথমিক তথ্যের ভিত্তিতে শুনেছি ওই পরিবারে পারিবারিক কলহ রয়েছে। মেয়টির পরিবারে ‘দুমুখি’ তথ্য পাওয়া গেছে।

তিনি জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা করেননি ভুক্তভোগী ওই মেয়েটির পরিবার। তবে তাদেরকে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ নিয়ে থানায় আসতে বলা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।