বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:২৩ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
মাহফুজের সাথে বিচ্ছেদ করে নতুন সংসার গড়লেন ইভা সিলেট নগরীতে আত্মহত্যা করেছে আপন দুই বোন জলবায়ু বিষয়ে বিশ্ব নেতাদের কাছে ৬টি প্রস্তাব পেশ করলেন শেখ হাসিনা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ৩৮ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজ লেখক, সংগঠক, অভিনেতা প্রশান্ত লিটনের ৪৩ তম জন্মদিন বিশ্বনাথে গলায় ছোরা চালিয়ে যুবকের আত্মহত্যা বহু সংখ্যক সিদ্ধান্ত গ্রহণের মধ্যদিয়ে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা সম্পন্ন গোলাপগঞ্জে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় দাদ-নাতির মৃত্যু স্কটল্যান্ডে সহকর্মীর ছুরিকাঘাতে বিয়ানীবাজারের এক যুবক খুন বিয়ানীবাজারের রামদায় মাইকে ঘোষণা দিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ
গোলাপগঞ্জে গণপিটুনিতে এক ডাকাত নিহত

গোলাপগঞ্জে গণপিটুনিতে এক ডাকাত নিহত

নিউজ ডেস্ক :: সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকাদক্ষিণে ডাকাতি শেষে পালিয়ে যাওয়ার সময় ডাকাতদলকে ধাওয়া করে স্থানীয় জনতা। এসময় ডাকাতদের ছোঁড়া এলোপাতাড়ি গুলিতে পাঁচজন আহত হন। এছাড়া ডাকাতদের মারধরে আরো এক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। এরপর স্থানীয় জনতার গণপিটুনিতে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত অস্ত্র ও লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধরা হলেন- ঢাকাদক্ষিণের পশ্চিম দত্তরাইল গ্রামের মৃত সাহাবুদ্দিনের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (২২), মানোয়ার হোসেন (২৪), একই এলাকার আতিব আলীর ছেলে সাইদুল ইসলাম (৪০), বকু মিয়ার ছেলে আরমান আহমদ (৩০) ও মনন আহমদের ছেলে দুলাল আহমদ (২৭)। তাদেরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া ডাকাতদের মারধরে আহত হয়েছেন দত্তরাইল মিশ্রপাড়ার গৃহকর্তা জ্ঞান সেনের ছেলে দুলাল সেন (৪০)।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রবিবার ভোররাতে গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকাদক্ষিণের দত্তরাইল মিশ্রপাড়া গ্রামের জ্ঞান সেনের বাড়িতে একদল ডাকাত হানা দেয়। ডাকাতরা জ্ঞান সেন ও তার স্ত্রী শক্তি রাণী সেনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বেঁধে ফেলে। এসময় বাঁধা দিলে ডাকাতরা জ্ঞান সেনের ছেলে দুলাল সেনকে মারধর করে আহত করে।

ডাকাতরা জ্ঞান সেনের বাড়ি থেকে ১ হাজার ডলার, নগদ দুই লক্ষ টাকা, ৫ ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও মূল্যবান জিনিসপত্রসহ কয়েক লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে যায়। যাওয়ার সময় বাড়ির সিসি ক্যামেরাও নিয়ে যায় ডাকাতরা।

এদিকে, পালানোর সময় পশ্চিম দত্তরাইল জামে মসজিদের ইমাম বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয় লোকজনকে অবগত করেন। এসময় গ্রামের লোকজন ডাকাতদের ধাওয়া করলে তারা এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়লে পাঁচজন আহত হন। বাকি ডাকাতরা পালিয়ে গেলেও লোকজন এক ডাকাতকে ধরে গণধোলাই দিলে সে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। তার কাছ থেকে ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত অস্ত্র ও লুন্ঠিত কিছু মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন গোলাপগঞ্জ থানার ওসি হারুনুর রশীদ চৌধুরী। বাকি ডাকাতদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান পরিচালিত হচ্ছে।

ডাকাতির খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন করেছেন সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গোলাপগঞ্জ সার্কেল) রাশেদুল হক চৌধুরী।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি