রবিবার, ২৫ Jul ২০২১, ০৭:৪৪ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
যুক্তরাষ্ট্রে বিয়ানীবাজারের এক যুবকের আকষ্মিক মৃত্যু জকিগঞ্জে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষা অফিসারের মৃত্যু, বাদ আসর জানাজা দুবাগ স্কুল এন্ড কলেজের সাবেক শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া স্মরণে ভার্চুয়াল আলোচনা ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন মাইকে ঘোষণা দিয়ে বিয়ানীবাজারের দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত অর্ধ শতাধিক ফকির আলমগীর আর আমাদের মাঝে নেই গোয়াইনঘাটে র‍্যাবের অভিযানে ৪৮৩ বোতল ফেন্সিডিল সহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কঠোর লকডাউনে থাকবে যেসব বিধিনিষেধ বিয়ানীবাজারে করোনায় মারা গেলেন এক স্কুল শিক্ষিকা জকিগঞ্জের শাহগলীতে বিদ্যুৎষ্পষ্ট হয়ে এক কিশোরের মৃত্যু করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ ও সুবক্তা হাফিজ মৌলানা লুৎফুর রহমান নজিবী
আমি গুণ্ডা-মাস্তান থেকে চেয়ারম্যান হয়েছি, মাহফিলে হামলাসহ অশ্লীল গালিগালাজ

আমি গুণ্ডা-মাস্তান থেকে চেয়ারম্যান হয়েছি, মাহফিলে হামলাসহ অশ্লীল গালিগালাজ

দর্পণ ডেস্ক : কুমিল্লা জে’লার লাকসাম উপজে’লায় গোবিন্দপুর ইউনিয়নের নারায়াণপুর গ্রামের মাহফিলে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন শামীম গত ৭ ফেব্রুয়ারি রোববার নিজেই মাহফিলের মঞ্চে উঠে ওয়াজরত অবস্থায় মা’ওলানা এম হাসিবুর রহমানের মাইক কেড়ে নিয়ে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং নিজেকে স’ন্ত্রা’সী এবং গুণ্ডাদের চেয়ারম্যান বলে দাবি করেন। পরে চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একদল স’ন্ত্রা’সী বাহিনী এসে মা’ওলানা হাসিবুর রহমানের গাড়ি ভাঙচুর করে। তারপর অবস্থা খা’রা’প হওয়ায় জীবন বাঁ’চাতে মা’ওলানা হাসিবুর লাকসাম থা’না পু’লিশকে খবর দেন। পরে পু’লিশ এসে হুজুর ও তার সফর সঙ্গীদের নিরাপদ জায়গায় পৌঁছে দেন।

গতকাল সোমবার (৯ ফেব্রুয়ারী) বিকাল ৪টা ৪৭ মিনিটে তার ফেসবুকের ভেরিফাইড পেজে মা’ওলানা হাসিবুর রহমান গাড়ি ভাঙচুরের ছবিসহ চেয়ারম্যানের হা’ম’লার ঘটনাটি তিনি নিজ ভাষায় বর্ণনা করেন এবং পৃথকভাবে ওই ঘটনার একটি প্রত্যক্ষ ভিডিও আপলোড করেন। এতে মুহূর্তেই তা ভাই’রাল হয়ে যায়। সন্ধ্যা ৭টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মা’ওলানা হাসিবুরের স্ট্যাটাসটিতে লাইক পড়ে ১২ হাজার,কমেন্ট পড়ে ২ হাজার এবং বিভিন্ন জন শেয়ার করে ২ হাজার ২শটি। অ’পর দিকে হা’ম’লার ভিডিও এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৪ হাজার ৫৬৩ জন দেখেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান শামীম হুঙ্কার দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ওই সময় আমি এমন হুঙ্কার না দিলে মাহফিলে উপস্থিত প্রায় ১০/১২ হাজার লোক আমাকে মে’রে ফেলতো। মাহফিল পণ্ড করতে গেলেন কেন, এমন প্রশ্নের জবাবে চেয়ারম্যান শামীম বলেন, নিয়ম অনুযায়ী মাহফিলের অনুমুতি নেয়া হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি