সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ১১:৩১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
চুনারুঘাটের কিশোরীকে আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ

চুনারুঘাটের কিশোরীকে আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ

চুনারুঘাট প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে এক কিশোরীকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। র‌্যাব অভিযান চালিয়ে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করেছে।

মঙ্গলবার (০২ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে ওই কিশোরীকে অসুস্থ অবস্থায় হবিগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এ ঘটনা নিয়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, গত ৯ জানুয়ারী চুনারুঘাট উপজেলার চাটপাড়া গ্রামের আইয়ুব আলীর ষোড়শী কন্যা তার এক বান্ধবীকে নিয়ে শায়েস্তাগঞ্জ রেল স্টেশনে বেড়াতে আসে। ওই দিন একই উপজেলার গনেশপুর গ্রামের চেরাগ আলীর পুত্র কাওসার মিয়া (২২) তার এক সহযোগীকে নিয়ে ওই কিশোরীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে অপহরণ করে এবং শায়েস্তানগর এলাকার কাদির মিয়ার ভাড়াটিয়া বাসায় তাকে নিয়ে রাত্রিযাপন করে। পরে সে কয়েকদিন বিভিন্ন বাসায় তাকে নিয়ে রাত্রিযাপন করে।

এদিকে, ওই কিশোরীর পরিবারের লোকজন তাকে না পেয়ে বড় বোন সালমা আক্তার গত ২৮ জানুয়ারি চুনারুঘাট থানায় জিডি করেন। এর প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৯ এর একটি দল ৩১ জানুয়ারি কললিষ্টের সূত্র ধরে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে তার পরিবারের জিম্মায় দেয়। পরে পরিবারের লোকজনকে ওই কিশোরী একাধিকবার তাকে ধর্ষণের বিষয়টি জানায়। এতে করে একটি প্রভাবশালী মহল বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে। অবশেষে সমাধান না হওয়ায় ওই কিশোরীর অবস্থার অবনতি হলে গতকাল তাকে হবিগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চুনারুঘাট থানার ওসি আলী আশরাফ জানান, ‘বিষয়টির ব্যাপারে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে কোনো মামলা হয়নি। অভিযুক্ত কাওসারকে ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে’।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি