শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
কানাইঘাট থেকে ইয়াবা সহ এক ভারতীয় নাগরিককে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব বিয়ানীবাজারে সাড়ে ৩ কেজি গাঁজা সহ ২জনকে আটক করেছে থানা পুলিশ গোয়াইনঘাটে মা মেয়ে ছেলে সহ ৩ জনের গলাকাটা লাশ উদ্ধার জকিগঞ্জে মিলেছে গ্যাসের সন্ধান সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান- এর ১ম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ওয়েব অব হিউম্যানিটি এল্যায়েন্স সিলেট এর শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ ও দোয়া মাহফিল ১৪ বছর পর ধর্ষণ মামলার এক পলাতক আসামিকে গ্রেফতার করেছে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ বাংলাদেশ ভারত সংস্কৃতি মৈত্রী ফ্রন্ট এর ভিডিও কনফারেন্স সভা সম্পন্ন হয়েছে মধ্যরাতে বিয়ানীবাজারে অটোরিকশার ধাক্কায় এক যুবক নিহত বিয়ানীবাজার থেকেই কিশোরী উদ্ধার,অপহরণকারী যুবক গ্রেফতার মাদক মামলার সাজা প্রাপ্ত এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ
তৃণমূল ক্রিকেটার তৈরিতে বিয়ানীবাজারে কোয়াব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে

তৃণমূল ক্রিকেটার তৈরিতে বিয়ানীবাজারে কোয়াব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে

দর্পণ ডেস্ক : ক্রিকেটার ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন (কোয়াব) বিয়ানীবাজার শাখা বিগত দুই বছর থেকে তৃনমুল পর্যায়ের ক্রিকেটারদের নিয়ে কাজ করছে।

কোয়াব ক্রিকেট একাডেমি বিয়ানীবাজার এর হেড কোচ হিসেবে রয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক সিলেটের সন্তান রাজিন সালেহ। ধারাবাহিক ভাবে করোনার বিপর্যয় কাটিয়ে আবারো মাঠে তৃণমূল ক্রিকেটারদের নিয়ে কাজ শুরু করেছে কোয়াব ক্রিকেট একাডেমি। একাডেমিটিতে জাতীয় মানের কোচ সহ স্থানীয় অভিজ্ঞ সাবেক ও বর্তমান ক্রিকেটাররাও রয়েছেন বোলিং ফিল্ডিং নির্দেশনা দেয়ার জন্য।

বর্তমানে কোয়াব বিয়ানীবাজার ক্রিকেট একাডেমিতে প্রায় ৭০ জন ক্রিকেটার রয়েছেন। যাদের নিয়ে স্বপ্ন দেখছে কোয়াব কর্তৃপক্ষ,সম্প্রতি দু দলে বিভক্ত হয়ে একটি তিন ম্যাচের সিরিজ খেলেছে এই একাডেমির তরুণরা। যার ফলে নিজেদের প্রমাণের সুযোগ পাচ্চে তারা।

এ ছাড়াও জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক রাজিন সালেহ’র সংস্পর্শ পেয়ে জাতীয় দলে খেলার স্বপ্নে আরো এক ধাপ এগিয়ে যাচ্ছে এই অঞ্চলের তরুন ক্রিকেটাররা। উপজেলা জুড়ে হাজার হাজার ক্রিকেটার তৈরির কারখানা হতে পারে কোয়াব ক্রিকেট একাডেমি।

কোয়াব বিয়ানীবাজার শাখার সদস্য সচিব এ আর আনিস বলেন, আমরা করোনার দকল কাটিয়ে আবারো অনুশীলন আনুষ্ঠানিক ভাবে ফিরেছি। শুরু থেকেই চেষ্টা করছি এই অঞ্চল থেকে জাতীয় দলের জন্য ভালো মানের ক্রিকেটার তৈরি করার। সকলের সহযোগিতা পেলে আমাদের প্রবাসী অধ্যুষিত উপজেলা থেকে ভবিষ্যতে মাশরাফি মুশফিকরা বেড়িয়ে আসবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

সব মিলিয়ে তরুন ক্রিকেটারদের জন্য কোয়াব ক্রিকেট একাডেমি দিচ্ছে সব রকমের সুযোগ সুবিধা আর এই সুযোগ সুবিধা কাজে লাগাতে পারলে অনেক প্রতিভাবান ক্রিকেটার তৈরি হবে এই একাডেমি থেকে-এমন প্রত্যাশা অনেকেরই।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি