শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২১, ১১:১৮ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি আরো বাড়লো জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষক ; স্বীকৃতিদাতা মার্কিন সিনেটর গ্রেফতার সিলেট নগরীতে বিনামূল্যে ওয়াইফাই থাকলে ও মিলছে না সেবা বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র রয়েছে উত্তর কোরিয়ায় সিলেট হুমায়ুন চত্বরের তিতাস হোটেলে অসামাজিক কার্যকলাপে নারীসহ আটক ১৪ বিয়ানীবাজারের দক্ষিণ চরিয়ায় মিনি নাইট ফুটবল টুর্নামেন্ট এর উদ্বোধন নবীগঞ্জে আ.লীগ-বিএনপির পাল্টাপাল্টি অভিযোগ ; নিরব স্বতন্ত্র নবীগঞ্জে সাবেক এমপি সুজাতসহ ১৬ জনের আগাম জামিন বানিয়াচংয়ে বিকল্প জীবিকা নির্বাহের জন্য বিল ব্যবহারকারী সদস্যদের মাঝে চেক বিতরণ ‘বঙ্গবন্ধু’ সিনেমায় শেখ রেহানা চরিত্রে অভিনয় করবেন সাবিলা নূর
বাহুবলে কলেজ ছাত্র নির্যাতন মামলায় ২আসামী কারাগারে

বাহুবলে কলেজ ছাত্র নির্যাতন মামলায় ২আসামী কারাগারে

দর্পণ ডেস্ক : জেলার বাহুবল উপজেলার দ্বিমুড়া গ্রামে হবিগঞ্জ বৃন্দাবন সরকারি কলেজের অনার্স ৪র্থ বর্ষের ছাত্র ফয়সলকে গাছে বেধেঁ মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের মামলায় দুই আসামীর জামিন বাতিল করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আসামীরা হলেন, মাওলানা আসকর আলীর পুত্র মঈন উদ্দিন এমরান (৪৫)মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে মহিউদ্দিন (৪০)। আজ মঙ্গলবার ২২ ডিসেম্বর দুপুরে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিনা হক এ আদেশ দেন। আসামীদের উপস্থিতিতে বিচারক জামিন আবেদন বাতিল করেন।

এছাড়া মামলায় জাহানারা আক্তার লিপি, মাহফুজা আক্তার লিজা, সাবেক ইউপি সদস্য কুতুব আলী, সালেহ উদ্দিন, আব্দুল হান্নান, আশিক মিয়া, বাহা উদ্দিনের জামিন বহাল রাখেন।

এরমধ্য মামলার অন্যতম আসামী ফখরুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন। আলোচিত মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট শফিক আলম আজাদ ও বিবাদী পক্ষের আইনজীবি এডভোকেট জালাল উদ্দিন দীর্ঘ শুনানি শেষে বিচারক তাদের জামিন বাতিল করেন। প্রসঙ্গত, গত ৩০ অক্টোবর দিবাগত রাতে উপজেলার লামাতাসী ইউনিয়নের দ্বিমুড়া কুয়েত প্রবাসী আব্দুল হাইর বাড়িতে কলেজ ছাত্রকে চোর আখ্যা দিয়ে খুঁটিতে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করা হয় ।

গত ১নভেম্বর সকালে ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে সারাদেশ জুড়ে শুরু হয় তোলপাড়। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েকজন লোক ফয়সলকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করছে।

এ সময় ফয়সল বাঁচার জন্য আকুতি এবং বার বার আল্লাহ অল্লাহ বলে চিৎকার করছিল। কিন্তু এরপরও চলে বর্বর নির্যাতন । পরে ২ নভেম্বর ফয়সলের মাম বাদী হয়ে দ্বিমুড়া গ্রামের আব্দুল হাইর স্ত্রী জাহানারা আক্তার লিপি ও মেয়ে লিজাকে আসামী করে ১০জনের নাম উল্লেখ করে বাহুবল থানায় মামলা করলে পুলিশ আব্দুল হাইর ভাতিজা এমরান সহ দুইজনকে তাৎক্ষণিক গ্রেফতার করেন। যার মামলা নং জিআর ১৪৫/ ২০ বাহু:।

তবে ঘটনার মুল নায়ক ফখরুলকে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি