রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৪:০৪ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
বিয়ানীবাজারে নামধারী ছাত্রলীগ ক্যাডার সালাউদ্দিন গ্রেফতার কানাইঘাটে কারেন্টে তারে লাগে দাদা-নাতির মৃত্যু চুনারুঘাটে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব ১২ বছর পর ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি গ্রেফতার করেছে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ নাসির ও তামিমার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জানুয়ারিতে জেলা পরিষদ নির্বাচন দ্বিতীয় ধাপে ৮৪৮ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে চুনারুঘাটে ৮ ঘন্টার ব্যবধানে একই পরিবারে ৩ জনের মৃত্যু আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্ম দিন পালন করেছে বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগ মাদক বিরোধী অভিযানে জীবন উৎসর্গ করলেন পুলিশ কর্মকর্তা পিয়ারুল
হল বন্ধ রেখে পরীক্ষা ; শিক্ষার্থীরা মানবে না

হল বন্ধ রেখে পরীক্ষা ; শিক্ষার্থীরা মানবে না

দর্পণ ডেস্ক : পরীক্ষায় অংশ নিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আবাসিক হলগুলো খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার বিকেলে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এ মানববন্ধনে অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স-মাস্টার্সের পরীক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, শিক্ষার্থীদের থাকার একমাত্র জায়গা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো। করোনার এই সময়ে হল বন্ধ থাকলে শিক্ষার্থীরা থাকবে কোথায়। শিক্ষার্থীদের নিরাপদ আবাসন ব্যবস্থার কথা মাথায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে হলগুলো খুলে দেয়ার দাবি জানান তারা।

তারা আরো বলেন, হুট করে পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে; শিক্ষার্থীদের বেশির ভাগের পরীক্ষার প্রস্তুতিও তেমন নেই। দেশের প্রত্যান্ত অঞ্চল থেকে পড়তে আসা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের হল ছাড়া থাকার কোনো নিরাপদ আবাসন ব্যবস্থাও নেই। হল বন্ধ রেখে যে পরীক্ষা পদ্ধতির কথা বলা হচ্ছে সেটা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৩ হাজার শিক্ষার্থী মানে না।

করোনা পরিস্থিতির কারণে গত মার্চ থেকে বন্ধ আছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। গত জুন থেকে অনলাইনে ক্লাস চললেও কোনো পরীক্ষা হয়নি।

বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) হুট করেই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২৬ ডিসেম্বর থেকে স্নাতক শেষ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের পরীক্ষাগুলো নেয়া হবে। কর্তৃপক্ষ এ–ও জানিয়েছে যে বিদ্যমান পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের আবাসিক সুবিধা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। অর্থাৎ আবাসিক হলগুলো বন্ধই থাকছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্তে শিক্ষার্থীদের অনেকে আপত্তি জানিয়েছেন। বিভিন্ন বিভাগ ও ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীরা বলছেন, আবাসিক হল বন্ধ রেখে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্তটি যৌক্তিক নয়।

তাদের দাবি, পরীক্ষা নিতে হলে হলগুলো সীমিত পরিসরে হলেও খুলে দিতে হবে কিংবা বিকল্প কোনো ব্যবস্থা করতে হবে।

এ ব্যাপারে উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এই মুহূর্তে পরীক্ষাগুলো নেয়া খুব জরুরি। করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে আবাসিক হলগুলো খুলে দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। এই মুহূর্তে আমাদের হাতে আর কোনো অপশন নেই।’

এদিকে হল খোলার বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ফেসবুক গ্রুপ ‘স্বপ্নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে’ বৃহস্পতিবার একটি পোস্ট দেয়া হয়। সেখানে ১৫ ঘণ্টায় সাড়ে তিন হাজার শিক্ষার্থী বলেছেন, সীমিত পরিসরে হলেও (যাদের পরীক্ষা, শুধু তাদের জন্য) হল খুলে দিয়েই পরীক্ষা নেয়া উচিত।

হল খোলার বিরুদ্ধে বলেছেন ১৭০ জনের মতো।

আবার কিছু শিক্ষার্থী অভিযোগ করছেন, কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্ত তাদের ব্যর্থ প্রশাসনিক কাঠামোর-ই একটি অংশ।

অবিলম্বে হল বন্ধ রেখে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনায় নিয়ে শিক্ষার্থীবান্ধব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধও জানিয়েছে অনেক শিক্ষার্থী

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি