বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০১:৫৩ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
বিয়ানীবাজারে নামধারী ছাত্রলীগ ক্যাডার সালাউদ্দিন গ্রেফতার কানাইঘাটে কারেন্টে তারে লাগে দাদা-নাতির মৃত্যু চুনারুঘাটে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব ১২ বছর পর ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি গ্রেফতার করেছে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ নাসির ও তামিমার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জানুয়ারিতে জেলা পরিষদ নির্বাচন দ্বিতীয় ধাপে ৮৪৮ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে চুনারুঘাটে ৮ ঘন্টার ব্যবধানে একই পরিবারে ৩ জনের মৃত্যু আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্ম দিন পালন করেছে বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগ মাদক বিরোধী অভিযানে জীবন উৎসর্গ করলেন পুলিশ কর্মকর্তা পিয়ারুল
ঢাবির ছাত্র অধিকার পরিষদের ২ নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

ঢাবির ছাত্র অধিকার পরিষদের ২ নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

দর্পণ ডেস্ক : ঢাবি ছাত্রীর করা ধর্ষণ মামলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র অধিকার পরিষদের দুই নেতাকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ করেছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর। রোববার রাতে ফেসবুক লাইভে এসে এ অভিযোগ করেন তিনি।

এছাড়া ছাত্র সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সোহরাব হোসেনকে খোঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলেও অভিযোগ রয়েছে।

ছাত্র অধিকার পরিষদের অভিযোগ, রোববার দুপুর ২টার দিকে মগবাজার থেকে ডিবি পরিচয়ে নাজমুল হুদাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। চানখারপুল থেকে তুলে নেয়া হয় সাইফুল ইসলামকে। তিনি ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক।

এছাড়া কেন্দ্রীয় ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক সোহরাব হোসেনের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না বলেও দাবি করেছেন সংগঠনের আহ্বায়ক রাশেদ খাঁন।

এ বিষয়ে নুরুল হক নুর বলেন, নাজমুল হুদা মগবাজারে একটি চাকরির ইন্টারভিউ দেয়ার সময় ডিবি পরিচয়ে কে বা কারা তাকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর থেকে আর তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

একই সংগঠনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-আহ্বায়ক সোহরাব হোসেনের খোঁজ নেই বলেও জানান নুর।

নাজমুল হুদাকে তুলে নিয়ে যাওয়া বিষয়ে রমনা বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে আমার জানা নেই। এই নামে কেউ আটক নেই।

ডিএমপির উপ-পুলিশ (মিডিয়া) মো. ওয়ালিদ হোসেন বলেন, মামলার আসামি আটক বা গ্রেপ্তার বিষয়টি তদন্ত কর্মকর্তার এখতিয়ারে থাকে। তবে ঢাবি ছাত্রীর ধর্ষণের মামলায় কাউকে আটক বা গ্রেপ্তার করা হয়নি।

উল্লেখ্য, রাজধানীর লালবাগ থানায় করা ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ মামলায় সাইফুল ইসলাম চার নাম্বার আসামি ও নাজমুল হুদাকে পাঁচ নাম্বার আসামি করা হয়েছে। একই মামলার আসামি ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি