মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৪৫ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
বিয়ানীবাজারে নামধারী ছাত্রলীগ ক্যাডার সালাউদ্দিন গ্রেফতার কানাইঘাটে কারেন্টে তারে লাগে দাদা-নাতির মৃত্যু চুনারুঘাটে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব ১২ বছর পর ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি গ্রেফতার করেছে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ নাসির ও তামিমার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জানুয়ারিতে জেলা পরিষদ নির্বাচন দ্বিতীয় ধাপে ৮৪৮ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে চুনারুঘাটে ৮ ঘন্টার ব্যবধানে একই পরিবারে ৩ জনের মৃত্যু আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্ম দিন পালন করেছে বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগ মাদক বিরোধী অভিযানে জীবন উৎসর্গ করলেন পুলিশ কর্মকর্তা পিয়ারুল
হবিগঞ্জে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

হবিগঞ্জে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জ সদর উপজেলার আটঘরিয়া গ্রামে প্রেমের ফাঁদে ফেলে জনৈক এক মাদ্রাসা ছাত্রী (১৮) কে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।মূমুর্ষ অবস্থায় ওই মাদ্রাসা ছাত্রীকে উদ্ধার করে মঙ্গলবার (০৬ অক্টোবর) বিকেলে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ ঘটনায় ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় ধর্ষণের অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলা দায়েরের পর থেকে অভিযুক্ত ফয়সল আহমেদ রাজন পলাতক রয়েছে। তাকে ধরতে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।
মামলার বরাত দিয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার এসআই আবু নাঈম জানান, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লস্করপুর ইউনিয়নের চরহামুয়া নগর গ্রামের মাদ্রাসা পড়ুয়া জনৈক কন্যার সাথে কোচিং করার সুবাধে পরিচয় হয় সদর উপজেলার পইল ইউনিয়নের আটঘরিয়া গ্রামের ফয়সল আহমেদ রাজনের। রাজন ওই কোচিং সেন্টারে শিক্ষকতা করত।
পরিচয়ের এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। প্রায় ২ বছর ধরে চলে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক। এরই প্রেক্ষিতে সোমবার রাজন ওই মাদ্রাসা ছাত্রীকে বিভিন্ন প্রলোভন দিয়ে তাদের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। রাতে ওই মাদ্রাসা ছাত্রীর পরিবার তাদের মেয়েকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না এবং রাজনের সাথে প্রেমের সম্পর্কের বিষয়টি পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ রাজনের বাড়িতে অভিযান চালায়। এসময় নির্যাতিতা ওই মাদ্রাসা ছাত্রীকে উদ্ধার করা হলেও রাজন কৌশলে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।
এসআই আবু নাঈম আরো জানান, ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে রাজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা করেছে। তাকে ধরতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করছে। দ্রুত তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি