সোমবার, ১০ মে ২০২১, ১২:৫২ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
বড়লেখা থেকে ১৮৫০ পিস ইয়াবা সহ ২ মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৯ মাদ্রাসা ও এতিমখানার নামে ভুয়া রশিদ তৈরি করে চাঁদা আদায়;আটক ১১ প্রতারক ইফতারি ও ঈদের কাপড়ের জেরে ওসমানী নগরে অন্তঃসত্ত্বা নববধূ হত্যা;আটক -২ সুনামগঞ্জে ২৫০ টাকার জন্য বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন গ্রামপুলিশ রউফ হত্যা মামলার ২ আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৯ মাধবপুরে ২২৪৮ পিস ইয়াবা সহ র‍্যাবের হাতে আটক সুজন জকিগঞ্জ থেকে আরো একজন হেফাজত নেতা গ্রেফতার অনন্য নেত্রী শেখ হাসিনা -সিলভিয়া পারভিন লেনি ৪৬০ পিস ইয়াবা সহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‍্যাব-৯ যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরছেন সাবেক ছাত্রনেতা মস্তাক আহমেদ
সৌদিতে ভিক্ষা করায় ৪৫০ ভারতীয় গ্রেফতার

সৌদিতে ভিক্ষা করায় ৪৫০ ভারতীয় গ্রেফতার

দর্পণ ডেস্ক : করোনা মহামারির কারণে গোটা দুনীয়াতেই বেকারত্ব আর দারিদ্র বেড়েছে। তার থেকে ব্যাতিক্রম নয় বিশ্বের অন্যতম প্রধান ধনী রাষ্ট্র সৌদি আরব। দেশটিতে অবস্থান করা বিদেশি শ্রমিকরা বেশি বিপাকে পড়েছেন। বেকার হয়ে পড়েছেন দক্ষিণ এশিয়া থেকে দেশটিতে রুটি রুজির সন্ধানে যাওয়া মানুষেরা। ব্যতিক্রম নয় ভারতীয়রাও, বেকারত্বের কবলে পড়েছেন দেশটির দরিদ্র পীড়িত অঞ্চল থেকে সৌদি আরবে পাড়ি জমানো মানুষগুলো।

অভাবের তাড়নায় ৪৫০ জনের বেশি শ্রমিক সৌদি আরবের রাস্তায় ভিক্ষা করেন। এতে দেশটির পুলিশ তাদের আটক করে জেল হাজতে নিয়েছে। এসব শ্রমিক মূলত অন্ধ্র প্রদেশ, মহারাষ্ট্র, বিহার, দিল্লি, রাজস্থান এবং কর্ণাটক রাজ্য থেকে সৌদি আরবে গিয়েছেন। এই শ্রমিকদের ওয়ার্ক পারমিটের (কাজ করার অনুমতি পত্র) মেয়াদ এখন শেষ হয়ে গেছে। তাদের অবস্থা আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে।

তাদের দুর্দশার কথা তুলে ধরে সামাজিক কর্মী আমজাদ উল্লাহ খান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সৌদি আরবের জেদ্দার কারাগার থেকে এসব শ্রমিককে দেশে ফেরানোর উদ্যোগ নেয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

আটকদের জেলে নেয়ার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে বলে জানিয়েছে টাইম অব ইন্ডিয়া। সেখানে দেখা যায়, শ্রমিকদের জেদ্দার শুমাইসি’র একটি জেলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। শ্রমিকদের মধ্যে ৩৯ জন উত্তর প্রদেশ, ১০ জন বিহার, ৫ জন তেলঙ্গানার বাকিদের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানা যায়নি।

শ্রমিকদের দাবি, তারা কোনো অপরাধের সঙ্গে যুক্ত নন। বেকারত্ব এবং কাজের অনুমতিপত্র না থাকায় খাদ্যের অভাবে তারা ভিক্ষা করতে হচ্ছে।

মোট ২.৪ লক্ষ ভারতীয় দেশে ফিরে আসার খবর পাওয়া গেছে তবে এখন পর্যন্ত। এসব শ্রমিককে ফিরিয়ে আনা অথবা তাদের ছাড়িয়ে নেয়ার বিষয়ে এখন পর্যন্ত ভারত সরকারের পক্ষে কোনো ঘোষণা দেয়া হয়নি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি