শুক্রবার, ৩০ Jul ২০২১, ০৭:১৭ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
আলোচিত হেলেনা জাহাঙ্গীরের গুলশানের বাসায় অভিযান চালাচ্ছে র‍্যাব গোয়াইনঘাটে প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরে যুবকের গলাকাটা লাশ,চারজনকে আসামি করে থানায় মামলা আমেরিকা প্রবাসী নারী সেজে প্রতারণা, প্রতারককে শেখঘাট থেকে আটক করেছে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ করোনায় মারা গেলেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট সানিয়া আক্তার দেশে ফিরা ৫ লাখ প্রবাসী পাবেন সাড়ে ১৩ হাজার টাকা করে অনুদান বিয়ানীবাজার উপজেলা যুবলীগ নেতার পিতৃবিয়োগ,বিভিন্ন মহলের শোক ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৮৯২ সিলেন্ডার অক্সিজেন প্রদান করেছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী জয়ের জন্য ভালোবাসা – ড.সেলিম মাহমুদ লিবিয়ায় হাসপাতালের আইসিইউতে এক বাংলাদেশি যুবকের মৃত্যু পবিত্র মক্কায় গলায় ফাঁস দিয়ে এক বাংলাদেশির আত্মহত্যা
আজমিরীগঞ্জে অবৈধ বালি উত্তোলনের দায়ে ৫টি ড্রেজারমেশিনসহ সরঞ্জাম ধ্বংস করেছে প্রশাসন

আজমিরীগঞ্জে অবৈধ বালি উত্তোলনের দায়ে ৫টি ড্রেজারমেশিনসহ সরঞ্জাম ধ্বংস করেছে প্রশাসন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৫টি ড্রেজার মেশিন এবং ৫ হাজার মিটার পাইপ জব্দ করে তা ধ্বংস করেছে উপজেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) উত্তম কুমার দাশের নেতৃত্বে ৫ নং শিবপাশা ইউনিয়নে ১ নং ওয়ার্ডের নোয়াপাড়ায় অভিযান চালিয়ে বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অমান্য করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত এগুলো জব্দ ও ধ্বংস করে।

জানা যায়, বিগত বেশ কিছু দিন ধরে উপজেলার নদ-নদীসহ বিভিন্ন স্থানে একটি প্রভাবশালী বালুখেকো চক্র প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে অবৈধ পন্থায় বালু উত্তোলন করে আসছে। বারবার উপজেলা প্রশাসনের অভিযানে সরঞ্জামাদি জব্দ ও ধ্বংস করলেও থামছে না ওই বালুখেকো চক্র। এভাবে বালু উত্তোলনের ফলে এলাকায় নদী ভাঙন, ফসলি জমি বিনষ্ট হওয়াসহ পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে একাধিক সংবাদ প্রকাশ হলে নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার মতিউর রহমান খাঁন এবং নবাগত সহকারী কমিশনার (ভূমি) উত্তম কুমার দাশ নিয়মিত অভিযানে নামেন। জব্দ ও ধ্বংস করা করা হয় হাজার হাজার মিটার পাইপ এবং ডজন খানেকের উপরে ড্রেজার মেশিন। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার উপজেলা (ভারপ্রাপ্ত) নির্বাহী কর্মকর্তা উত্তম কুমার দাশ এই অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযান পরিচালনাকালে আজমিরীগঞ্জ থানার এসআই জয়ন্ত কুমার তালুকদারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) উত্তম কুমার দাশ জানান, এই উপজেলায় কোনও অনুমোদিত বালু মহাল নেই। এরপরও অসাধু ব্যক্তিরা বিভিন্ন নদ-নদী থেকে এবং ভূমিতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও বিক্রি করে আসছে। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বালু উত্তোলনের ৫টি ড্রেজার মেশিন এবং ৫ হাজার মিটার পাইপ জব্দ ও ধ্বংস করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি