মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৭:২১ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
ভয়ানক হতে পারে করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ

ভয়ানক হতে পারে করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ

দর্পণ ডেস্ক : করোনার প্রকোপ গোটা বিশ্ব জুড়ে। এমন কোন অঞ্চল নেই যেখানে করোনা পৌছায়নি।এরই মধ্যে বিশ্বের অনেক দেশে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা কিছুটা কমে গেলেও সবার মধ্যে তৈরি হয়েছে নতুন আতঙ্ক। করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ কেমন হবে?কিভাবে আঘাত হানবে? ইতিহাসে বড় ধরনের মহামারি আবার ফিরে আসার ইতিহাস রয়েছে।

১৯১৮ সালে ভয়ংকর মহামারী স্প্যানিশ ফ্লুর দ্বিতীয় ধাপ অনেক বেশি ভয়াবহ ছিলো প্রথম ধাপের তুলনায়। সে হিসেবে করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ আরো ভয়ঙ্কর হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। এখন কোভিড-১৯ সংক্রমণের দ্বিতীয় বা তৃতীয় ঢেউয়ের হাত থেকে কীভাবে বাঁচা যায় তা নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে বিশ্বের সব দেশ।

করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ কি?
আপনি এটি সমুদ্রের ঢেউয়ের মতো ভাবতে পারেন। সংক্রমণের সংখ্যা বেড়ে যায় এবং তারপরে আবার নীচে ফিরে আসে । প্রতিটি চক্র করোনভাইরাসটির একটি “তরঙ্গ”। তবুও এর কোন আনুষ্ঠানিক সংজ্ঞা নেই।

ওয়ারউইক ইউনিভার্সিটি থেকে ডাঃ মাইক টিল্ডসলে বিবিসিকে বলেছেন, এটি কোনও বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা নেই আপনি একটি তরঙ্গকে নির্বিচারে কীভাবে সংজ্ঞায়িত করেন।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এরই মধ্যে লকডাউন তুলে নেওয়া হয়েছে সেই সাথে বিধিনিষেধ শিথিল করা হয়েছে। এই লকডাউন শিথিলের পর অর্থনীতিতে গতিশীলতা ফিরলেও তৈরি হয়েছে দ্বিতীয় তরঙ্গের শঙ্কা।

লকডাউন তোলার ফলে করোনা আক্রান্ত কতটা হারে বাড়ছে, তার উপরে একটি জরিপ করা হয়। রিপোর্টে স্পষ্ট বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ বা সেকেন্ড ওয়েভের ঝুঁকি প্রবল। রিপোর্ট বলছে, অর্থনীতির বড় অংশ খুলে গিয়েছে, এমন ১৭টি দেশে সংক্রমণের সেকেন্ড ওয়েভ বা দ্বিতীয় ঢেউ আসার লক্ষণ নেই৷ ১৩টি দেশের ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, সেকেন্ড ওয়েভের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না৷ তবে ঝুঁকি তুলনামূলক কম৷ ১৫টি দেশের ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, সেকেন্ড ওয়েভের ঝুঁকি প্রবল৷

সার্ভেতে ৪৫টি দেশকে তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে৷ ১ম টি হল, অন ট্র্যাক অর্থাত্‍ সব কিছু স্বাভাবিক, ২য় টি হল, ওয়ার্নিং সাইনস বা সতর্কতার লক্ষণ ও ৩য় টি হল ডেঞ্জার জোন বা দ্বিতীয় ঢেউয়ের ঝুঁকি প্রবল৷ অন ট্র্যাক বা ঝুঁকি প্রায় নেই, এমন গোষ্ঠীতে রয়েছে, ফ্রান্স, ইতালি ও দক্ষিণ কোরিয়া৷ জার্মানি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেনের মতো দেশগুলি ঝুঁকিপ্রবণ গোষ্ঠীতে রয়েছে৷ ওয়ার্নিং সাইনে আছে ইন্দোনেশিয়া, চিলি, ভারত,পাকিস্তানের মতো দেশগুলি।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ক্রিয়েটিভ জোন আইটি