শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ১২:২১ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
শ্রীমঙ্গলে চা বাগানের টিলা ধসে ৪ নারী শ্রমিকের মৃত্যু বিশ্বনাথ থানা পুলিশ কর্তৃক মোবাইল কোট পরিচালনা করে এক মাদক বিক্রেতার জেল জরিমানা বিয়ানীবাজারে ঝুলন্ত শিশুর ৪ দিন পর ঝুলন্ত কিশোরের লাশ উদ্ধার শিশু ইমনের মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল তৈরি ; হত্যা না আত্মহত্যা জানতে চায় স্বজন জকিগঞ্জে গুলিবিদ্ধ হয়ে এক বিজিবি সদস্য নিহত সড়ক দুর্ঘটনায় জালালপুর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আওলাদ হোসেন নিহত দুবাগের শিশু ইমনের ঝুলন্ত লাশ মুড়িয়ায় পাওয়া গেছে কুলাঙ্গার ওয়াহিদকে গ্রেফতার করেছে জকিগঞ্জ থানা পুলিশ সিএনজি থেকে লাফ মেরে মৃত্যু বরণকারী স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন হয়নি বিয়ানীবাজারের মাথিউরায় যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
২০ বছর পর আপন ঠিকানায় যাচ্ছে শায়েস্তাগঞ্জ থানা

২০ বছর পর আপন ঠিকানায় যাচ্ছে শায়েস্তাগঞ্জ থানা

দর্পণ ডেস্ক : দীর্ঘ ২০ বছর ধরে শায়েস্তাগঞ্জ থানার কার্যক্রম চলে আসছে ভাড়া করা ভবনে। এবার ভাড়া বাসার অবসান হচ্ছে এবং নতুন ভবনে যাচ্ছে শায়েস্তাগঞ্জ থানার কার্যক্রম। আর স্থানান্তরিত হওয়া এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

দীর্ঘদিন ভাড়া ভবনে কার্যক্রম চলায় বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে এলে নানা প্রতিকুলতা কাটিয়ে ২০১৭ সালে শায়েস্তাগঞ্জের বড়চর মৌজায় ঢাকা- সিলেট মহাসড়কের পাশে ১০০ শতক জমি অধিগ্রহণ করা হয়। অধিগ্রহণ জমিতে ভবন নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে উদ্বোধন করা হতে পারে শায়েস্তাগঞ্জ থানার নিজস্ব ভবন।

জানা যায়, ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে টেকনোক্র্যাট কোটায় অর্থমন্ত্রী হন হবিগঞ্জের কৃতিসন্তান শাহ এএমএস কিবরিয়া। অর্থমন্ত্রী হয়ে তখনকার সময়ে হবিগঞ্জের অনেক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড শুরু করেন। এর অংশ হিসেবে ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন শায়েস্তাগঞ্জ থানা। প্রতিষ্ঠার পর শহরের উদয়ন আবাসিক এলাকায় প্রথমে একটি বাসা ভাড়া নিয়ে থানার কার্যক্রম শুরু হয়। পরে সেখানে জায়গার সংকুলান না হওয়ায় একই এলাকার আরেকটি বাসায় স্থানান্তর করা হয়। এখন পর্যন্ত ওই ভাড়া বাসাতেই চলছে থানার কার্যক্রম।

এদিকে ধীরে ধীরে থানার লোকবলও বাড়তে থাকে। অফিসার ইনচার্জসহ ৫৮ জন পুলিশ রয়েছেন থানায়। থাকা-খাওয়াসহ নানান সমস্যায় জর্জরিত পুলিশ। কিন্তু এখন সবাই আশার আলো দেখছেন নতুন ভবনের জন্য। দীর্ঘদিনের কষ্ট লাঘব হচ্ছে আগামী মাসেই। নতুন ভবনের কাজ ইতিমধ্যেই ৯৫ ভাগ শেষ। থানার ভবনের সীমানা প্রাচীর ও আর ঘষা-মাজার কাজ বাকি। অন্যান্য কাজ ইতিমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে।

এ বিষয়ে শায়েস্তাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব বলেন- প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ থানার কার্যক্রম চলে আসছে ভাড়া বাসায়। খুব কষ্টে থাকা ও খাওয়া লাগে। এ বাসায় ও সংকুলান হয় না। নতুন ভবনের কাজ একেবারেই শেষ পর্যায়ে। হয়তো আগামী মাসেই উঠতে পারবো নতুন ভবনে। দীর্ঘ ২০ বছর পর ভবন পাচ্ছে পুলিশ।

তিনি পুলিশের দুঃখ দুর্দশা লাঘবে নতুন ভবন বরাদ্দ দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ওরাকল আইটি