শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ১২:২৭ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
শ্রীমঙ্গলে চা বাগানের টিলা ধসে ৪ নারী শ্রমিকের মৃত্যু বিশ্বনাথ থানা পুলিশ কর্তৃক মোবাইল কোট পরিচালনা করে এক মাদক বিক্রেতার জেল জরিমানা বিয়ানীবাজারে ঝুলন্ত শিশুর ৪ দিন পর ঝুলন্ত কিশোরের লাশ উদ্ধার শিশু ইমনের মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল তৈরি ; হত্যা না আত্মহত্যা জানতে চায় স্বজন জকিগঞ্জে গুলিবিদ্ধ হয়ে এক বিজিবি সদস্য নিহত সড়ক দুর্ঘটনায় জালালপুর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আওলাদ হোসেন নিহত দুবাগের শিশু ইমনের ঝুলন্ত লাশ মুড়িয়ায় পাওয়া গেছে কুলাঙ্গার ওয়াহিদকে গ্রেফতার করেছে জকিগঞ্জ থানা পুলিশ সিএনজি থেকে লাফ মেরে মৃত্যু বরণকারী স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন হয়নি বিয়ানীবাজারের মাথিউরায় যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
বাহুবলে কলেজ ছাত্র নির্যাতন মামলায় ২আসামী কারাগারে

বাহুবলে কলেজ ছাত্র নির্যাতন মামলায় ২আসামী কারাগারে

দর্পণ ডেস্ক : জেলার বাহুবল উপজেলার দ্বিমুড়া গ্রামে হবিগঞ্জ বৃন্দাবন সরকারি কলেজের অনার্স ৪র্থ বর্ষের ছাত্র ফয়সলকে গাছে বেধেঁ মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের মামলায় দুই আসামীর জামিন বাতিল করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আসামীরা হলেন, মাওলানা আসকর আলীর পুত্র মঈন উদ্দিন এমরান (৪৫)মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে মহিউদ্দিন (৪০)। আজ মঙ্গলবার ২২ ডিসেম্বর দুপুরে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিনা হক এ আদেশ দেন। আসামীদের উপস্থিতিতে বিচারক জামিন আবেদন বাতিল করেন।

এছাড়া মামলায় জাহানারা আক্তার লিপি, মাহফুজা আক্তার লিজা, সাবেক ইউপি সদস্য কুতুব আলী, সালেহ উদ্দিন, আব্দুল হান্নান, আশিক মিয়া, বাহা উদ্দিনের জামিন বহাল রাখেন।

এরমধ্য মামলার অন্যতম আসামী ফখরুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন। আলোচিত মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট শফিক আলম আজাদ ও বিবাদী পক্ষের আইনজীবি এডভোকেট জালাল উদ্দিন দীর্ঘ শুনানি শেষে বিচারক তাদের জামিন বাতিল করেন। প্রসঙ্গত, গত ৩০ অক্টোবর দিবাগত রাতে উপজেলার লামাতাসী ইউনিয়নের দ্বিমুড়া কুয়েত প্রবাসী আব্দুল হাইর বাড়িতে কলেজ ছাত্রকে চোর আখ্যা দিয়ে খুঁটিতে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করা হয় ।

গত ১নভেম্বর সকালে ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে সারাদেশ জুড়ে শুরু হয় তোলপাড়। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েকজন লোক ফয়সলকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করছে।

এ সময় ফয়সল বাঁচার জন্য আকুতি এবং বার বার আল্লাহ অল্লাহ বলে চিৎকার করছিল। কিন্তু এরপরও চলে বর্বর নির্যাতন । পরে ২ নভেম্বর ফয়সলের মাম বাদী হয়ে দ্বিমুড়া গ্রামের আব্দুল হাইর স্ত্রী জাহানারা আক্তার লিপি ও মেয়ে লিজাকে আসামী করে ১০জনের নাম উল্লেখ করে বাহুবল থানায় মামলা করলে পুলিশ আব্দুল হাইর ভাতিজা এমরান সহ দুইজনকে তাৎক্ষণিক গ্রেফতার করেন। যার মামলা নং জিআর ১৪৫/ ২০ বাহু:।

তবে ঘটনার মুল নায়ক ফখরুলকে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ওরাকল আইটি