বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০১:৩৮ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
দলে কেউ অপরিহার্য নয়, সাকিব প্রসঙ্গে পাপন

দলে কেউ অপরিহার্য নয়, সাকিব প্রসঙ্গে পাপন

দর্পণ ডেস্ক : সাকিবের ছুটি মঞ্জুরের পর থেকেই বাংলাদেশের ক্রিকেট মহলে জোর গুঞ্জন, টেস্ট দলের চুক্তি থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছেন এই অলরাউন্ডার। সোমবার বোর্ড সভা শেষে বিষয়টি নিয়ে তেমন কিছু বললেন না বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। শুধু জানালেন, দলে কেউ অপরিহার্য নয়।

সভা শেষে বিসিবি প্রধান বলেন, ‘সাকিবের চুক্তি নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। কোনো খেলোয়াড়ই অপরিহার্য নন। কেউ যদি জাতীয় দলে খেলার বদলে অন্য কোথাও খেলতে চায়, সেই ব্যাপারে বাধা দেয়া হবে না।

‘যে খেলতে চায় না, সে খেলবে না। আমরা চাই, সকলে খেলুক। কিন্তু কারও যদি ন্যাশনাল টিমের চাইতে অন্য জায়গায় খেলতে ভালো লাগে, তাদের যেতে কোনো বাধা নেই। এই বার্তাটা সবার জন্য, কেবল সাকিব আল হাসানের জন্য নয়।’

সাকিবের টেস্ট না খেলার প্রসঙ্গে বিসিবি সভাপতির মত, হয়তো ক্রিকেটের রাজসিক ফরম্যাট পছন্দই নয় সাকিবের।

তিনি বলেন, ‘ধরে নিচ্ছি হয়ত এই ফরম্যাট তার পছন্দ না। সব ফরম্যাট সবার পছন্দ না হতেই পারে। এটা লজিক্যাল।’

২০১৭ সালে বাংলাদেশ দলের সাউথ আফ্রিকা সফরের আগে টেস্ট ক্রিকেট থেকে ছয় মাসের ছুটি চেয়েছিলেন সাকিব। দেয়া হয়েছিল তিন মাস। নাজমুল জানান, সেই সময় থেকেই টেস্ট খেলতে আগ্রহী ছিলেন না সাকিব। কিন্তু তাকে করে দেয়া হয়েছিল অধিনায়ক!

জোর করে চেষ্টার পরও সাকিব অনাগ্রহী থাকায় আর সেই পথে এগুবে না বিসিবি বলেও জানিয়ে দেন বোর্ড সভাপতি।

‘সাকিব তো আরও তিন বছর আগেই খেলতে চায়নি টেস্টে। ও তো এমনিতেই টেস্টের প্রতি অত আগ্রহ দেখায়নি। ওকে টেস্ট অধিনায়ক করে দেওয়া হল। জোর করে তো চেষ্টা করলাম তো। তাতে করে এগোতে পারছিনা। পিছনের দিকে যাচ্ছি। যখন জানব এই কয়জন প্লেয়ার চায় না টেস্ট খেলতে তখন তাদের বিকল্প নিয়ে চিন্তা করতে হবে। হয়তো এক বা দেড় বছর সময় লাগবে’, বলেন নাজমুল।

২০২১ সালের কেন্দ্রীয় চুক্তি এখনও ঘোষণা করেনি বিসিবি। নাজমুল জানালেন, নতুন চুক্তিতে খেলোয়াড়দের আগে থেকেই জানাতে হবে তারা কোন ফরম্যাট খেলবেন, কোনটি খেলবেন না।

‘চুক্তিতে নতুন কিছু জিনিস যোগ হবে। ওখানে স্পষ্টভাবে লেখা থাকবে, কে কোন ফরম্যাটে খেলতে চায়, তাদেরকে বলতে হবে। এই চুক্তিতে যারা সই করবে, তাদেরকে তখন যেতে দিব না। ব্যাপারটা এখন উন্মুক্ত। এই কয়দিন পর্যন্ত ব্যাপারটা ছিল ব্যক্তির উপরে, এখন এটা আমরা কাগজে-কলমে লিখিত নিয়ে নিচ্ছি। কারও বলার কিছু থাকবে না’, বলেন বিসিবি সভাপতি।

সাকিব শ্রীলংকায় টেস্ট খেলতে না চাওয়ার বিষয়টি তাকে বিব্রত না করলেও এতে তার মন খারাপ হয়েছে বলে জানান নাজমুল। তিনি বলেন, খেলোয়াড়দের পেছনে যথেষ্ট বিনিয়োগ করেন তারা। তিনি বলেন, টানা এতগুলো টেস্ট হারার পর টেস্ট খেলতে না চাওয়ায় বাকরুদ্ধ তিনি।

‘আমাকে যদি বলেন, মন খারাপ (সাকিব শ্রীলংকায় টেস্ট না খেলায়)। একটা প্লেয়ারের পিছনে তো কম বিনিয়োগ করি না আমরা। একটা তো হচ্ছে খেলাধুলা সংশ্লিষ্ট এই চুক্তি। চুক্তির বাইরে ইনজুরি হলে ওদেরকে যে ফ্যাসিলিটি আমরা এখন দেই, সেটা তো আগে কখনো চিন্তাই করা যেত না।

‘সেই জায়গায় যদি কেউ মনে করে, এটা খেলবে না, অন্য একটা ফ্র্যাঞ্চাইজিতে খেলবে, এরপর আর বলার কিছু থাকে না’, বলেন বিসিবি সভাপতি।

নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে মঙ্গলবার দেশ ছাড়ছে টাইগাররা। সেখানে খেলবে তিন ওয়ানডে ও তিন টি-টোয়েন্টি। সেই সিরিজেও নেই সাকিব। তৃতীয় সন্তানের জন্মের সময় স্ত্রীর পাশে থাকতে এই সফর থেকে ছুটি নিয়েছেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ওরাকল আইটি