শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ১১:৩২ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
শিরোনাম :
শ্রীমঙ্গলে চা বাগানের টিলা ধসে ৪ নারী শ্রমিকের মৃত্যু বিশ্বনাথ থানা পুলিশ কর্তৃক মোবাইল কোট পরিচালনা করে এক মাদক বিক্রেতার জেল জরিমানা বিয়ানীবাজারে ঝুলন্ত শিশুর ৪ দিন পর ঝুলন্ত কিশোরের লাশ উদ্ধার শিশু ইমনের মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল তৈরি ; হত্যা না আত্মহত্যা জানতে চায় স্বজন জকিগঞ্জে গুলিবিদ্ধ হয়ে এক বিজিবি সদস্য নিহত সড়ক দুর্ঘটনায় জালালপুর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আওলাদ হোসেন নিহত দুবাগের শিশু ইমনের ঝুলন্ত লাশ মুড়িয়ায় পাওয়া গেছে কুলাঙ্গার ওয়াহিদকে গ্রেফতার করেছে জকিগঞ্জ থানা পুলিশ সিএনজি থেকে লাফ মেরে মৃত্যু বরণকারী স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন হয়নি বিয়ানীবাজারের মাথিউরায় যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
খুলনায় ভাড়া না পেয়ে ভাড়াটিয়ার ঘরে তালা ; শিশুর মৃত্যু

খুলনায় ভাড়া না পেয়ে ভাড়াটিয়ার ঘরে তালা ; শিশুর মৃত্যু

দর্পণ ডেস্ক : ভাড়া না পেয়ে শিশু সন্তানসহ ভাড়াটিয়াকে তালাবদ্ধ করে আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে এক বাড়িওয়ালার বিরুদ্ধে। তালাবদ্ধ অবস্থায় বালতির পানিতে তালাবদ্ধ ভাড়াটিয়ার ছয় মাস বয়সী শিশুর মৃত্যু হলে ঘটনাটি নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়। খুলনার হরিণটানায় বুধবার (১৩ জানুয়ারি) এই ঘটনা ঘটে।

শিশুটির বাবা-মা মো.নওশেরকে দায়ী করে থানায় অভিযোগ দিলেও পুলিশ তা গ্রহণ করেনি। পুলিশ অপমৃত্যুর মামলা গ্রহণ করে। পরে এই দম্পতি আদালতে যান। এরপর ভুক্তভোগীরা আদালতে আইনজীবীদের কাছে এই পরিস্থিতির কথা জানান।
এলাকাবাসীসূত্রে জানা যায়, গেল বছরের ডিসেম্বরে কাঠের ডিজাইন মিস্ত্রী ইমদাদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী তামান্না মাসে চার হাজার টাকা চুক্তিতে রিয়াবাজার এলাকায় একতলা বাড়ির দুই কক্ষ ভাড়া নেন।

জানুয়ারি মাসের অগ্রিম ভাড়া দিতে না পারায় ৬ তারিখ থেকে বাইরে থেকে শিশুসহ তামান্নাকে আটকে রাখে নওশের। এসময় তামান্নার স্বামী ইমদাদুল ছিলেন মোংলায়। তিনি সেখানে কাঠের ডিজাইনের কাজ করছিলেন।

তামান্না অভিযোগ করে জানান, গত ১১ জানুয়ারি দুপুরবেলায় শিশুটি খেলতে গিয়ে বাসায় পানির বালতিতে পড়ে যায়। এসময় তামান্না এসে সন্তানকে উদ্ধার করলেও ঘর বাইরে থেকে তালাবদ্ধ থাকায় চিকিৎসকের কাছে নেওয়া যায়নি।

স্থানীয় জলমা ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম লিটন জানান, শিশুটির মা জানালা দিয়ে চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন তালা ভেঙে তাদের উদ্ধার করেন। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে শিশুটি মারা যায়।

আইনজীবী মোমিনুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, অসহায় বাবা-মা থানায় লিখিত অভিযোগ দিলেও পুলিশ মামলা নেয়নি। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) আদালতে অভিযোগ দায়ের করা হবে।
লবণচরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সমীর কুমার সরদার বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমরা অপমৃত্যু মামলা নিয়েছি। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। তদন্তে ঘটনার সত্যতা প্রমাণিত হলে এটা মামলায় রূপান্তরিত হবে।’

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ওরাকল আইটি