রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫৭ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
আমাদের সিলেট দর্পণ  ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন news@sylhetdorpon.com এই ই-মেইলে ।
কেমুসাসের ১১২০তম সাহিত্য আসর সম্পন্ন

কেমুসাসের ১১২০তম সাহিত্য আসর সম্পন্ন

নিউজ ডেস্ক ◾সিলেটের প্রাচীনতম সাহিত্য সংঘটন কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য পরিষদের ১১২০তম সাহিত্য আসর আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পরিষদের হল রুমে সম্পন্ন হয়েছে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমান বলেছেন, আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ছিলেন অসাম্প্রদায়িক ও মানবতার কবি। তিনি একদিকে যেমন ইসলামের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কাব্য রচনা করেছেন তেমনি হিন্দুদের শ্যাম সঙ্গীতও রচনা করেছেন। মাত্র তেইশ বছরের সাহিত্যিক জীবনে তিনি সাহিত্যের যে প্রাচুর্য রেখে গেছেন তা অতুলনীয়। নজরুলের কবিতা ও গানের মুল বিষয়বস্তু ছিল মানুষের ওপর মানুষের অত্যাচার এবং সামাজিক অনাচার ও শোষণের বিরুদ্ধে সোচ্চার প্রতিবাদ। এ কারণেই ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের প্রিয় কবি কাজী নজরুল।

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নিবেদিত কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের ১১২০তম সাপ্তাহিক সাহিত্য আসরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। কবি কাজী নজরুল ইসলামকে নিবেদিত সাহিত্য আসরে যোগদানের পূর্বে জেলা প্রশাসক কেমুসাস-ভাষাসৈনিক মতিন উদদীন আহমদ জাদুঘর ও সংসদের পাঠাগার পরিদর্শন করেন এবং দেশের ঐতিহ্যবাহী এ সাহিত্য প্রতিষ্ঠান ও এর কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করে সাহিত্য সংসদ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর ২০২২) সন্ধ্যায় সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে কেমুসাসের সাহিত্য ও গবেষণা সম্পাদক আহমদ মাহবুব ফেরদৌসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ১১২০তম সাপ্তাহিক সাহিত্য আসরে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মুজিবুর রহমান চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. আনোয়ার সাদাত, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইমরুল হাসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মিজ ইয়াসমিন, সিলেট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুসরাত আজমেরী হক এবং সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক আবদুল হামিদ মানিক। সিলেটে কবি কাজী নজরুল ইসলামের আগমন ও তাঁর সাহিত্যকর্ম নিয়ে বক্তব্য রাখেন সাহিত্য সংসদের সহসভাপতি প্রফেসর নন্দলাল শর্মা ও দেওয়ান এ এইচ মাহমুদ রাজা চৌধুরী, সহ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মবনু, আল ইসলাহ সম্পাদক সেলিম আউয়াল, সংসদের কোষাধ্যক্ষ আব্দুস সাদেক লিপন, সহপাঠাগার সম্পাদক ইছমত হানিফা চৌধুরী, কেমুসাস-ভাষাসৈনিক মতিন উদদীন আহমদ জাদুঘরের পরিচালক ডা. মোস্তফা শাহজামান চৌধুরী বাহার, সংসদের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য জগলু চৌধুরী, বেলাল আহমদ চৌধুরী ও মাহবুব মুহাম্মদ।

আসরে স্বরচিত লেখাপাঠে অংশ নেন দেওয়ান গাজী আব্দুল কুদ্দুছ শামশাদ, ঔপন্যাসিক সিরাজুল হক, কবি ছয়ফুল আলম পারুল, গণেশ চন্দ্র দেশমুখ, এখলাসুর রহমান, মুহাম্মদ ফয়জুল হক, জুবের আহমদ সার্জন, মোহাম্মদ ইসমাইল, আবদুল কাদির জীবন, সাজিদুর রহমান, মিলন চৌধুরী, মকসুদ আহমদ লাল, আতাউর রহমান বঙ্গী, জুবায়ের নাবিল, মোঃ বাহাউদ্দিন বাহার, জয়নাল আবেদীন, কয়ছর আহমদ এডভোকেট, মিধু দাস জয়, আশিকুল হক টেক্কা, রাজু আহমেদ, কয়ছর আহমদ, শামসীর হারুনুর রশীদ, ডি এইচ শিশির প্রমুখ।
নাঈমুল ইসলাম গুলজারের উপস্থাপনায় আসরের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন কবি কামাল আহমদ। সভাপতির বক্তব্যে মাহবুব ফেরদৌস জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে প্রশাসনের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ দেশের প্রাচীনতম সাহিত্য প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের জাদুঘর ও পাঠাগার পরিদর্শন করায় এবং সাহিত্য আসরে উপস্থিত হওয়ায় সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আসরের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৯ সিলেট দর্পণ ।

কারিগরি সহায়তায়ঃ-ওরাকল আইটি